<< ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, পদ হারালেন ছাত্রলীগ নেতা

কুমিল্লার ঘটনা নিয়ে ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে যশোরের ঝিকরগাছার মেরাজ হোসেন মিঠু নামে এক ছাত্রলীগ নেতাকে পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। মিঠু ঝিকরগাছার গদখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। রোববার (১৭ অক্টোবর) জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন কবির পিয়াস ও সাধারণ সম্পাদক তানজীব নওশাদ পল্লবের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

জানা গেছে, মিঠু তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে শুক্রবার সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক পোস্ট দেন। পদ হারানোর পর ক্ষমা চেয়ে আরও একটি পোস্ট দেন তার ফেসবুকে। মিঠু তার পোস্টে লিখেছেন, এমন ভুল আর কখনো হবে না। হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান আমরা সবাই ভাই ভাই।

এ বিষয়ে যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন কবির পিয়াস বলেন, মিঠু তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে উসকানিমূলক পোস্ট দিয়েছেন। যা ছাত্রলীগের দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী। এ কারণে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ থেকে তাকে আপাতত অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। ছাত্রলীগ একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনার সংগঠন। সেখানে সাম্প্রদায়িক ভাবধারার কারও অবস্থান নেই।

এদিকে, ৭২ এর সংবিধান ফিরিয়ে আনা ও ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেওয়ায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড. মুরাদ হাসানকে নিয়ে কেশবপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী মানিক, শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি জিল্লুর রহমান রাজ, বাঘারপাড়া উপজেলার ছাত্রলীগের সহ সভাপতি এম.এম. টিপু সুলতানও দলীয় আদর্শ ও সংগঠন বিরোধী পোস্ট দিয়েছেন।

যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা যুবলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম জুয়েল বলেন, ছাত্রলীগ একটি প্রগতিশীল সংগঠন। এ সংগঠনে থেকে কোনো ধরনের উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া বা সেটা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া অপরাধ।

শেয়ার করলে অনুপ্রাণিত হবো...

Leave a Reply

Your email address will not be published.