মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো তিনজন চিকিৎসক মারা গেছেন। এ নিয়ে করোনায় ১৮০ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হলো।

নতুন মৃত চিকিৎকরা হলেন- ঢাকা মেডিকেল কলেজের রেডিওলজি ও ইমেজিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. শামীম আহমেদ, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চিকিৎসক ডা. এএফএম শফিউদ্দিন পাতা ও টাঙ্গাইলের শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের স্ত্রী ও প্রসূতিবিদ্যা বিভাগের কনসালটেন্ট ডা. জাকিয়া রশীদ (শাফী)।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে এসব চিকিৎসকের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছে বিএমএ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মঙ্গলবার বেলা ৩টায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মারা যান ডা. শামীম আহমেদ। তার বয়স হয়েছিল ৫০ বছর। গত ১ জুলাই স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন ডা. শামীম আহমেদ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছিল। তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ৩২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন।

অন্যদিকে শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে মারা যান ডা. শফিউদ্দিন পাতা। তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ২০তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। বরিশাল জেলার সিভিল সার্জন হিসেবে সরকারি চাকরি থেকে অবসরে যান তিনি।

সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন ডা. জাকিয়া রশীদ। তার বয়স হয়েছিল ৪৬ বছর। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৫০ ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন।

করোনা গত বছরের ১৫ এপ্রিল সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দীন আহমেদ প্রথম মৃত্যুবরণ করেন।

শেয়ার করলে অনুপ্রাণিত হবো...

Leave a Reply

Your email address will not be published.